হিন্দু আইনের ইতিহাস

উৎসর্গ

 
যিনি আমার পিতা এবং আমি যার পিতা যথাক্রমে মরহুম মোঃ জহুরুল হক ও নূর এহতেশামুল আজাদ (দীপ)-কে এই বই উৎসর্গ করলাম।
 

লেখকের কথা

 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের ছাত্র থাকা অবস্থায় হিন্দু আইন পড়ার সুযোগ হয়নি। অনেকের মত আমার কাছেও বিষয়টি ছিল অত্যন্ত দূর্বোধ্য। কিন্তু ১৯৯৩ সন বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) একাডেমিতে প্রশাসন ক্যাডারের নবীন কর্মকর্তাদের জন্য হিন্দু আইন বিষয়ক অধিবেশন পরিচালনার আহবান পাই। প্র¯তুতির জন্য যথেষ্ট সময় পাওয়া সত্ত্বেও অধিবেশনটি ছিল খুবই অসফল কারণ আমি নিজেই তখনও বিষয়টি ভালোভাবে বুঝি না। মানুষের সহজাত প্রবৃতির মত আমারও জেদ চেপে বসলো। সরকারী কাজের পাশাপাশি হিন্দু আইনের চর্চা। এক সময় মনে হলো এ আইন কিছুটা দখলে এসেছে। হিন্দু আইনের বেশ কিছু বই পড়েছি কিন্তু অত্যন্ত ব্যাপক ও  প্রাচীন এই বিষয়টি পরিপূর্ণভাবে আয়ত্তে আনা খুবই দুরুহ ব্যাপার। যৎসামান্য  লেখাপড়াকে পুজি করে এই বই রচনায় নেমে পড়ি তবে  গোড়ায় ছিল বিসিএস (প্রশাসন) একাডেমির প্রশিক্ষণ অধিবেশন। এজন্য একাডেমির সহকর্মীগণকে জানাই আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।
 
হিন্দু আইন নিয়ে চর্চা করতে গিয়ে সহজ বাংলায় লিখা বই তেমন একটা চোখে পড়েনি। আর ইংরেজী ভাষায় অধিকাংশ বইয়ের লেখক ভারতীয়। আমরা জানি ভারতে হিন্দু আইনের ব্যাপক পরিবর্তন সাধন হয়েছে অনেক আইনের মাধ্যমে যার ছিটে ফোঁটাও আমাদের দেশে নেই। ফলে উক্ত বইগুলো আমাদের যে খুব কাজে লাগে তা নয়। এ সকল বিষয় বিবেচনা করে সহজ বাংলায় ‘ হিন্দু আইন ’ বইয়ের কাজে হাত দেই। 
 
আইন পেশায় নিয়োজিত বিজ্ঞ আইনজীবী, আইনছাত্র, শিক্ষক, বিচারক,ভূমি ব্যবস্থাপনার সাথে সম্পৃক্ত ব্যাক্তিবর্গের চাহিদা বিবেচনায় রেখে বইয়ে বেশ কিছু উদাহরণ সংযোজন করা হয়েছে। সাধারন মানুষের চাহিদা এই বই মেটাতে পারবে বলে আমি বিশ্বাস করি।  বইয়ের মান উন্নয়ণে যে কোন পরামর্শ বা বইয়ে উল্লেখিত কোন তথ্যের বিষয়ে মতামত সাদরে গৃহীত হবে। স্বল্প পরিসরে বিষয় সম্পর্কে ধারণা প্রদানের লক্ষ্যে বইয়ের শেষ দিকে সম্পূর্ণ বইয়ের সারাংশ সংযোজন করা হয়েছে। নওগাঁ জেলা পরিষদের স্টেনোগ্রাফার জনাব মাহতাব উদ্দিন পরিশ্রম করে কম্পিউটারে টাইপের কাজ সম্পন্ন করেছেন এজন্য আমি তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ।
 
আমার পরিবারের সদস্যগণ নানা ভাবে এই কাজে উৎসাহ দেয়ায় বইটি প্রকাশ উপযোগী করা সম্ভব হয়েছে। এ বইটি বিচারক,আইনজীবী, আইন ছাত্র ও শিক্ষক, গবেষক, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ সাধারণ জনগণের জ্ঞানচর্চা এবং ব্যবহারিক প্রয়োজনে লাগলে আমি কৃতার্থ হব।
 
(মোঃ আবুল কালাম আজাদ)
 
 

সূচিপত্র

 
প্রথম অধ্যায় : হিন্দু আইনের ইতিহাস               ১৩-১৫
বৈদিক যুগ; ধর্মশাস্ত্র যুগ; স্মৃতি পরবর্তী যুগ; হিন্দু আইনের মতবাদ; মিতক্ষরা স্কুল; বানারস স্কুল; মিথিলা স্কুল; মহারাষ্ট্র স্কুল; মাদ্রাজ স্কুল; দায়ভাগা স্কুল; হিন্দু জাতিপ্রথা; হিন্দু আইন কার জন্য প্রযোজ্য;
 
 
দ্বিতীয় অধ্যায় : হিন্দু আইনের উৎস
শ্র“তি; স্মৃতি; নিবন্ধ; প্রথা;
 
তৃতীয় অধ্যায় : হিন্দু উত্তরাধিকার আইনের সাধারণ নীতিসমূহ
স্ত্রীধন; সম্পত্তি বন্টন; মহিলা উত্তরাধিকার; প্রতিনিধিত্ব; সম্পত্তি পাওয়ার সম্ভাবনা;   সহ-উত্তরাধিকার; মাথা পিছু বিভাজন;
 
চতূর্থ অধ্যায় : দায়ভাগা মতে সম্পত্তি বন্টন
বন্টনযোগ্য সম্পত্তি; উত্তরাধিকারের ভিত্তি; তিন শ্রেণীর উত্তরাধিকার; সপিণ্ড; সকূল্য; সমানোদক; সম্পত্তি পাওয়ার অগ্রাধিকারের নীতিমালা; সপিণ্ডগণের ক্রমতালিকা; পুনঃএকত্রিত পরিবার;
 
পঞ্চম অধ্যায় : মিতক্ষরামতে সম্পত্তি বন্টন
উত্তরাধিকারীর শ্রেণীবিভাগ; সপিণ্ড; সমানোদক; বন্ধু; সপিণ্ডগণের ক্রমতালিকা; সমানোদকগণের সম্পত্তি; বন্ধুগণের সম্পত্তি পাওয়ার নীতিমালা; অন্যান্য উত্তরাধিকারী;
 
ষষ্ঠ অধ্যায় : বঞ্চিত ব্যক্তি
অসতিত্ব; খুনি; পঙ্গু; ধর্মান্তর; সন্ন্যাসির সম্পত্তি;
 
সপ্তম অধ্যায় : নারীর সম্পত্তি : উত্তরাধিকারমূলে প্রাপ্ত ও স্ত্রীধন
নারীর সম্পত্তির সীমিত অধিকার; স্ত্রীধন ও বিধবার সম্পত্তির পার্থক্য; মিতক্ষরা স্কুল অনুযায়ী স্ত্রীধন; দায়ভাগা স্কুলের স্ত্রীধন; স্ত্রীধন ও অন্যান্য সম্পত্তি; নারীর সম্পত্তির উৎস এবং বৈশিষ্ট্য; স্ত্রীধনের বিশেষত্ব
 
অষ্টম অধ্যায় : স্ত্রীধনের সম্পত্তি বন্টন
দায়ভাগা স্কুলমতে সম্পত্তি বন্টন; মিতক্ষরা স্কুলমতে সম্পত্তি বন্টন; সকল স্কুলের সাধারণ নিয়ম;
 
নবম অধ্যায় : নারীর সম্পত্তি : উত্তরাধিকারসূত্রে প্রাপ্ত
পুরুষের সম্পত্তিতে মহিলা উত্তরাধিকার; মহিলার সম্পত্তিতে মহিলা উত্তরাধিকার; উত্তরাধিকারমূলে প্রাপ্ত সম্পত্তিতে মহিলাদের অধিকার; বিধবার সম্পত্তিতে বিধবার অধিকার; সম্পত্তির আয়; সম্পত্তির আয় থেকে নতুন সম্পত্তি; ধর্মীয় ও কল্যাণমুখী কাজে সম্পত্তি হস্তান্তও; আইনসঙ্গত প্রয়োজন; সম্পত্তি হস্তান্তরের ফলাফল; 
 
দশম অধ্যায় : যৌথ পরিবার প্রথা
যৌথ পরিবারের সম্পত্তি বিভাজন; বাটোয়ারা ও পুনঃএকত্রিত হওয়া; 
 
একাদশ অধ্যায় : দান
কোন্ সম্পত্তি দান করা যায়; দখল হস্তান্তর; সম্মতি; জন্মগ্রহণ করেনি এমন ব্যক্তিকে দান; শর্তযুক্ত দান; দান প্রত্যাহার; মৃত্যু শয্যায় দান;  
 
দ্বাদশ অধ্যায় : উইল
বৈধ উইল; উইল সংক্রান্ত আইন; উইল বাতিল করা বা পরিবর্তন করা; প্রবেট; 
 
ত্রয়দশ অধ্যায়
: দান ও উইলের সাধারণ নিয়ম
Rule against per petuty; শর্তযুক্ত দান;
 
চর্তুদশ অধ্যায় : দেবোত্তর
দেবোত্তরের ইতিহাস; দেবোত্তরের উদ্দেশ্য; প্রকারভেদ; আংশিক দেবোত্তর; মৌখিক দেবোত্তর; বাতিল দেবোত্তর; সেবায়েত ও মোহন্ত;দেবোত্তর সম্পত্তি হস্তান্তও; পরবর্তী সেবায়েত ও মোহন্ত নিয়োগ; অধিকার; সেবায়েত ও মোহন্ত অপসারণ; প্রাইভেট ও পাবলিক দেবোত্তরের পার্থক্য; 
 
পঞ্চদশ অধ্যায় : বিবাহ
বিভিন্নপ্রকার বিবাহ; বিবাহের সংখ্যা; বৈধ বিবাহের শর্ত; দায়ভাগা ও মিতক্ষরা স্কুলমতে বিবাহ; অনুষ্ঠানাদি; তালাক; বিধবা বিবাহ; 
 
ষড়োশ অধ্যায় : দত্তক
দত্তকের উদ্দেশ্য; বিভিন্নপ্রকার দত্তক; দত্তকের শর্তাবলী; দত্তকগ্রহীতা; দত্তকদাতা; কাকে দত্তক দেয়া ও নেয়া যায়; দত্তকের ফলাফল; 
সপ্তদশ অধ্যায় : অভিভাবক
নাবালক; অভিভাবক; স্বাভাবিক অভিভাবক; উইলের মাধ্যমে নিয়োজিত অভিভাবক; কোর্ট কর্তৃক নিয়োজিত অভিভাবক;
 
অষ্টাদশ অধ্যায় : ভরণপোষণ
ব্যক্তিগত দায়; সম্পত্তির দায়; ভরণপোষণ পাওয়ার অধিকারীগণ; বিধবা; অন্যান্য মহিলাদের ভরণপোষণ; ভরণপোষণের জন্য মামলা;
 
*  হিন্দু উত্তরাধিকারী আইন : সংক্ষিপ্তসার
 
 
 
 

চার্ট পরিচিতি

চার্ট নম্বর ১ ঃ সপিন্ড,সকূল্য ও সমানোদক এর সংক্ষিপ্ত তালিকা ৩৮
চার্ট নম্বর ২ ঃ সপিন্ড এর প্রথম গ্র“প ৪০
চার্ট নম্বর ৩ ঃ অন্যান্য সপিন্ড ৪৩
চার্ট নম্বর ৪ ঃ সপিন্ড,সকূল্য ও সমানোদক এর বিস্তারিত তালিকা ৪৫
চার্ট নম্বর ৫ ঃ মিতক্ষরা মতে উত্তরাধিকারের তালিকা ৫৪
চার্ট নম্বর ৬ ঃ দায়ভাগা মতে যাদের বিবাহ করা যাবে না তাদের তালিকা ১২৩
 

Specifications

  • বইয়ের লেখক: আবুল কালাম আজাদ
  • আই.এস.বি.এন: ৯৮৪৭০২১৪০০৬৪৫
  • স্টকের অবস্থা: স্টক আছে
  • ছাড়কৃত মূল্য: ১৫০.০০ টাকা
  • বইয়ের মূল্য: ২০০.০০ টাকা
  • সংস্করণ: প্রথম প্রকাশ
  • পৃষ্ঠা: ১৫২
  • প্রকাশক: হাক্কানী পাবলিশার্স
  • মুদ্রণ / ছাপা: টেকনো বিডি ইন্টারন্যাশনাল
  • বাঁধাই: Hardback
  • বছর / সন: ফেব্র“য়ারি, ২০১১

Share this Book

Sky Poker review bettingy.com/sky-poker read at bettingy.com